২ নভেম্বর “জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস” ২০১৪

প্রতিবছরের মত এ বছরও যথাযোগ্য মর্যাদায় সন্ধানী কতৃক উদযাপি্ত হয় ২ নভেম্বর “জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান এবং মরণোত্তর চক্ষুদান দিবস”। সন্ধানী কর্তৃক সর্বপ্রথম স্বেচ্ছায় রক্তদান অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছিল ১৯৭৮ সালের ২ নভেম্বর। অনুষ্ঠানটি মানব সেবার যে অংগীকার নিয়ে শুরু হয়েছিল তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৫ সাল থেকে পালিত হয়ে আসছে এ জাতীয় দিবসটি। “মানবতা দৃঢ় হোক রক্তের বাঁধনে,দৃষ্টি আমার ঘোচাক আঁধার নয়নে নয়নে” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এ দিবস উপলক্ষে ৫ নভেম্বর ঢাকা মেডিকেলে আয়োজন করা হয় মানবড্রপ অঙ্কন,র‍্যালি, ছবি প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ দীপু মনি এম.পি(চেয়ারম্যা্ন,পররাষ্ট্র বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটি ), বিশেষ অতিথি ডাঃ কামরুল হাসান খান । আরও উপস্থিত ছিলেন সন্ধানী চক্ষুদান সমিতির সভাপতি জনাব আলী আসগর মোড়ল,মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ আবুল খায়ের মোহাম্মদ সালেক , সন্ধানী কেন্দ্রীয় পরিষদ এর সভাপতি মাইদুল ইসলাম সোহেল, সাধারন সম্পাদক মোঃ ইফতেখারুল আলম রিমন।আমন্ত্রিত অতিথিরা সর্বসাধারণকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে ও মরণোত্তর চক্ষুদানে এগিয়ে আসতে আহবান জানান।এ সময় মিডিয়াতে সন্ধানীর কার্যক্রম তুলে ধরার সম্মাননা স্বরূপ শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেয়া হয় স্যার সলি্মুল্লাহ মেডিকেল কলেজ এর ইন্টার্নী চিকিৎসক ডাঃ আফরিনা হোসেন কে। এ  দিন বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বপ্রথম ব্লাডড্রপ অঙ্কিত হয় ঢাকা মেডিকেল ফজলে রাব্বি হল মাঠপ্রাঙ্গনে।২৫০ জনের সমন্বয়ে তৈ্রী এ মানবড্রপের মাধ্যমে আর্তমানবতার সেবায় সকলকে এগিয়ে আসার বার্তা সকলের কাছে পৌছিয়ে দেয়া হয়।
বাংলার মাটিতে প্রথম মানবড্রপ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *