Dhaka Dental College Unit

সন্ধানী ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ইউনিট

 

ddc

 

আজ থেকে প্রায় ১৭ বছর আগে অসহায়, অসুস্থ চিকিৎসা প্রত্যাশী মানুষের কথা ঢাকা কলেজের একটি মেধাবী প্রাণচঞ্চল ছেলেকে সব সময়ই উদ্বেলিত করত। রক্তদান সম্বন্ধে সচেতনতার অভাবে হাসপাতাল গুলোতে রক্তের অভাবে প্রতিদিন একাধিক মূল্যবান জীবন ঝরে যেতে দেখা তৃতীয় বর্ষে পদার্পনকারী সেই মেধাবী ছেলেটি আসগর মোড়ল।

তাঁর এই দুর্বল মুহুর্তে পরিচয় ঘটে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ছাত্র তারই সিনিয়র আজাদ ভাইয়ের সাথে। কথায় কথায় যখন উনি সন্ধানীর কথা উচ্চারণ করলেন, আরো উৎসাহী ও আরো আত্মবিশ্বাসী হলেন আলী আসগর। মুহুর্তেই সীদ্ধান্ত নিলেন সন্ধানী ইউনিটের প্রতিষ্ঠা করবেন ঢাকা ডেন্টাল কলেজে। তখন সময়টা ছিল ৭ নভেম্বর, ১৯৮২ সন। কোন সন্দেহ নেই, সন্ধানীর ইতিহাসে এটি একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক।

১০ নভেম্বর রাতে সোবহানবাগস্থ ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ছাত্রবাস ৫০৩ নং রুমে উৎসাহী সবাই একত্রিত হলেন। আলোচনা ও সমর্থনের ভিত্তিতে গঠন করা হয় সন্ধানী ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ইউনিটের প্রথম এগারো সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী কমিটি। সভাপতি নির্ধারিত হন যথারীতি আলী আসগর মোড়ল। সমর্থনকারী ছিলেন তখনকার ২য় বর্ষের ছাত্র আতোয়ার রহমান। গুরু হয় সন্ধানী, ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ইউনিটের সম্মুখ পদচারণা।

প্রথম ১৯৮৩ সনে সন্ধানী পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঐ সম্মেলনেই সন্ধানীর ক্যাপশন পরিবর্তন করা হয়। বহু বির্তকের পর কুটনৈতিক সমঝোতার ভিত্তিতে সন্ধানীর ক্যাপশন পরিবর্তন করে রাখা হয়- ‘সন্ধানী- মেডিকেল ও ডেন্টাল ছাত্র-ছাত্রী পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান’।

১৯৮২ থেকে ১৯৮৮ সল পর্যন্ত সফল পরিক্রমণের পথে অপ্রত্যাশিতভাবে ঘটে যায় এক বিপত্তি। কমিটি সংক্রান্ত জটিলতায় ইউনিটের কার্যক্রম বন্ধ থাকে প্রায় ৬ মাসাধিক কাল। সুযোগ সত্ত্বেও হারাতে হয় কেন্দ্রী সভাপতির পদ। সাময়িকভাবে ব্যাহত হয় আমাদের ইউনিটের যাত্রাপথ। পরবর্তীকালে কলেজের সকল শিক্ষকদের সহযোগিতায় ও উদ্যোগে সন্ধানীর কার্যক্রম নবোদ্যমে শুরু হয়। এ ভ্যাপারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ আশরাফ হোসেন, ডাঃ ইমদাদুল, ডাঃ মালেক ভূইয়া, ডাঃ আনোয়ারুল আলম ও তৎকালীন আরও অনেক শ্রদ্ধেয় শিক্ষকবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *